নিজস্ব প্রতিবেদক :
শহরের বহুল আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা ইমন হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী ছৈয়দ আকবর ও রমজান আলীর দুইদিন করে রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছে আদালত। সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকালে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আকতার জাবেদ এর আদালতে তাদের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট ফরিদুল আলম জানান, ছাত্রলীগ নেতা ইমন হত্যা মামলার আসামী ছৈয়দ আকবর ও রমজান আলীর ৭দিন করে রিমান্ড আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। তারমধ্যে দুইজনের ২দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়। আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে রিমান্ড প্রক্রিয়া শেষ করার আদেশ দেওয়া হয়।

জানা যায়, গত ২১ জুলাই রাতে কক্সবাজার শহরের পেশকার পাড়ায় ছুরিকাঘাতে কক্সবাজার পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইমন হাসান নিহত হন। পূর্ব শক্রতার জের ধরে এ হত্যাকান্ড বলে পুলিশ ও নিহতে পরিবারের দাবী। এ ঘটনায় গত ২৪ জুলাই ৮ জনের নাম উল্লেখ করে ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন নিহত ইমনের পিতা মোহাম্মদ হাছান।

মামলায় প্রধান আসামী আবদুল্লাহ খানকে প্রধান আসামী করে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে দায়ের করা মামলায় ৭ জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে। এ ঘটনা এজাহারভূক্ত আসামী ওয়াসিম ও মিজানকে পুলিশ গ্রেফতার করে। অপর দিকে মামলার প্রধান আসামী আবদুল্লাহ খানকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

এদিকে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী আবদুল্লাহ খানের মামা মামলার ২নং আসামী রমজান ও ৪নং আসামী ছৈয়দ আকবর পলাতক থেকে হাইকোর্ট থেকে সাময়িক জামিন নেয়। জামিন নেয়ার পর তারা বেপরোয়া হয়ে উঠে। মামলা প্রত্যাহারে নানা হুমকী ধমকী দেয় ইমনের পরিবারকে। পরে জামিনের মেয়াদ শেষে নিম্ন আদালতে পুনরায় জামিন আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক তা নাকচ করে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

সর্বশেষ সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রমজান ও ছৈয়দ আকবরকে ২দিন করে রিমান্ডে নেয় পুলিশ।