প্রেস বিজ্ঞপ্তি:
উপমহাদেশের ঐতিহ্যবাহী ইসলামী ছাত্র সংগঠন ‘বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসমাজ’র আদর্শিক অভিযাত্রার ৫৩ বছর শীর্ষক আলোচনা সভা করেছে সংগঠনের কক্সবাজার জেলা শাখা। ১ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) বিকাল ৩ টায় শহরের নিরিবিলি অর্কিডে অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির কক্সবাজার জেলা আমীর, ইসলামী ছাত্রসমাজের সাবেক কেন্দ্রীয় সংগঠন সভাপতি মাওলানা আবদুল খালেক নিজামী বলেন, অনেক বাধার পাহাড় পেরিয়ে ঈমানদীপ্ত কাফেলা ইসলামী ছাত্রসমাজের আদর্শিক অভিযাত্রার অর্ধশত বছর পেরিয়ে আরও তিন বছর পূর্ণ হলো আলহামদুলিল্লাহ। সুদীর্ঘ পথপরিক্রমায় এ বিপ্লবী কাফেলার অবদানে গড়ে উঠেছে ইসলামী আন্দোলনের অনেক নির্ভীক সিপাহসালার, একনিষ্ঠ দাঈ, বিজ্ঞ রাজনীতিবিদ, সুবক্তা, প্রাজ্ঞ লেখক, সত্যনিষ্ঠ সাংবাদিক ও দক্ষ সংগঠক। সফলতার এই ধারা অব্যাহত রাখতে ইসলামী ছাত্রসমাজ নেতাকর্মীদের তাকওয়া, নিষ্ঠা, আদর্শিক জ্ঞান-প্রজ্ঞা ও দক্ষতার সাথে নিরবচ্ছিন্ন কর্মপ্রয়াস চালিয়ে যেতে হবে।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি, জেলা নেজামে ইসলাম পার্টির নায়েবে আমীর, ইসলামী ছাত্রসমাজের সাবেক সংগঠন সচিব মাওলানা আ. হ. ম নুরুল কবির হিলালী বলেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিভিত্তিক গণমুখী ইসলামী শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করা, স্বতন্ত্র ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা ও কওমী মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদীসের সনদকে এম.এ. এর সমমর্যাদা প্রদানসহ শিক্ষার্থীদের ন্যায্য দাবী আদায়ের আন্দোলনে এ সংগঠনের রয়েছে সংগ্রামী অবদান ও বিপ্লবী ঐতিহ্য। এ ইতিহাস নবপ্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে হবে।

এ অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন, ইসলামী ছাত্রসমাজের কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহ-সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর। তিনি বলেন, ইসলামী ছাত্রসমাজ শুধু একটি নাম নয়; এটি তৌহিদী ছাত্রজনতার অবিসংবাদিত একটি প্লাটফরম, এটি একটি বিপ্লব, একটি সমৃদ্ধ ইতিহাস, ঈমানদ্বীপ্ত ঐতিহ্যের এক অনবদ্য স্মারক। উপমহাদেশের প্রখ্যাত বুযুর্গানেদ্বীনের হাতে ১৯৬৯ সালের ৩ সেপ্টেম্বর ইসলামী ছাত্রসমাজের ঐতিহাসিক বুনিয়াদ স্থাপিত হয়। তাগুতি শক্তির মোকাবিলা, সন্ত্রাস ও উগ্রবাদ প্রতিরোধ এবং ইসলামী নেজাম প্রতিষ্ঠার সংগ্রামসহ দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষায় ইসলামী ছাত্রসমাজের বলিষ্ঠ অংশগ্রহন ও সংগ্রামী ভূমিকা ইতিহাসের পাতায় স্থান করে নিয়েছে। এ সোনালী অতীতকে সামনে রেখে সাংগঠনিক কর্মতৎপরতাকে অধিকতর বেগবান করতে হবে।

সংগঠনের কক্সবাজার জেলা সভাপতি হাফেজ শওকত আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা নেজামে ইসলাম পার্টির নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আবদুর রহমান জিহাদী, অর্থ সম্পাদক মাওলানা নুরুল হক চকোরী, জেলা শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক, কক্সবাজার শহর আমীর মাওলানা খালেদ সাইফী, সহ-অর্থ সম্পাদক মাওলানা জামাল হোছাইন ছিদ্দিকী।

জেলা ছাত্র কল্যাণ সম্পাদক মুহাম্মদ অলি উল্লাহ আরজুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, জেলা সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ দিদারুল আলম। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা সভাপতি মুহাম্মদ আব্দুল করিম, সদর উপজেলা প্রতিনিধি মুহাম্মদ আমিনুল্লাহ। সংগঠনের পরিচিতি নিয়ে ইংরেজিতে বক্তব্য রাখেন, স্কুল প্রতিনিধি আব্দুল্লাহ আল- ফাহিম।
এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, রামু উপজেলা ইসলামী ছাত্রসমাজ নেতা হাফেজ মাহদী হাসান, সিরাজুল মোস্তফা, হাফেজ দেলোয়ার হোসাইন, হাফেজ মুহাম্মদ জুবাইর, চকরিয়া উপজেলা প্রতিনিধি মুহাম্মদ জুনাইদ, শহর শাখার নুর রহমান নাফিস, হামদান, আব্দুল্লাহ আমজাদ, কাউছার ইকবাল প্রমুখ।
দু’আ মাহফিলে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও মরহুম নেতৃবৃন্দের রুহের মাগফিরাত, সংগঠনের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ আজিজুল হক ইসলামাবাদীর কারামুক্তি, মাওলানা হাফেজ ছালামতুল্লাহ ও মাওলানা ইয়াছিন হাবিবের রোগমুক্তি এবং দেশ ও জাতির শান্তি- সমৃদ্ধি কামনায় আল্লাহর দরবারে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।