কলাম

একটি সাদা কাফনের সফর নামা – (৩য় পর্ব)

– অধ্যাপক আকতার চৌধুরী ৩য় পর্বকক্সবাজার শহরে পড়ালেখা করি। অনেকদিন পর গ্রামে বেড়াতে গিয়েছি। গ্রামের বাড়ীর সামনেই আমার ছেড়ে যাওয়া রুমখা চৌধুরী পাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় । স্যারদের সালাম করতে ও স্কুলটাকে দেখার জন্য গেলাম। ভালুকিয়ার নুরুল ইসলাম স্যার । ইনি আমার সম্পর্কে ফুফাত ভাইও । আমাকে পেয়ে ওয়ানে ক্লাস নেয়ার জন্য পাঠালেন। জীবনে প্রথম ক্লাস । নার্ভাসনেস কাজ করছিল । ...

বিস্তারিত »

একটি সাদা কাফনের সফর নামা – (২য় পর্ব)

– অধ্যাপক আকতার চৌধুরী ২য় পর্ব ইহরামের কাপড়টা পড়ার পর থেকে শরীরে কিছু অদ্ভুত অনুভূতি হতে লাগল। আমি যেন জীবন্ত একটা লাশ। শরীরটা পালকের মত হালকা । ভিন্ন একটা জগতে ভেসে বেড়াচ্ছি। যেন চুম্বকীয় আবেশে আমার হৃদয় কম্পাস পুর্ব-পশ্চিম মেরুতে অবস্থান নিয়েছে। যতক্ষণ পৌছতে পারছি না ততক্ষণ মনে শান্তি পাচ্ছি না। হৃদয়ে গানের সুর – দে দে পাল তুলে দে ...

বিস্তারিত »

একটি সাদা কাফনের সফর নামা – (১ম পর্ব)

– অধ্যাপক আকতার চৌধুরী (১ম পর্ব) উখিয়ার গ্রামের বাজার রুমখাঁ । প্রতি সপ্তাহে বাজার বসত ২দিন। সোম ও বৃহস্পতিবার । এখন অবশ্য রুমখা বাজার বসে কিনা সন্দেহ । পাশের কোটবাজারের মত সদ্য গজে উঠা শহুরে বাজারের দাপটের কারণে এই বাজারটির অস্তিত্ব বিলীন হতে চলেছে । ছোট বেলায় বাজার বার হলে আমারও আনন্দের শেষ থাকত না । বাজারে গেলে আমার দাদা ...

বিস্তারিত »

কথা কও অতীত…

আলমগীর মাহমুদ : বুকে আশাওয়ালা কলম সৈনিকের কাচারি ঘর ‘সিবিএন’ আমার এই লেখায় প্রাক্তন ছাত্র মেধু বড়ুয়া শিক্ষক, বৌদ্ধ বিহার ও সমাজ সুরক্ষা কমিটির সেক্রেটারি উখিয়া মন্তব্য দেখে সেদিন আর এদিনের ছাত্রের বৈপরীত্য আমারে বেশ নাঁড়া দেয়।তাই স্মৃতি আঁচড়ানো। মেধু, খোরশেদ, মালেক, তারা আমার অর্জন।এদের কলম হাতে নেয়া মানে হৃদয়ে একফসলা ভালবাসার টর্ণেডো,কালবৌশাখী।আমার এই ছাত্রগুলো আলাদা বৈশিষ্ট্য ও গতিধারা ধারন ...

বিস্তারিত »

মায়ানমার সরকারের ইদুর বিড়াল খেলা

অধ্যাপক রায়হান উদ্দিন : বুঝতে কস্ট হয় না যে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সাথে মায়ানমার সরকার ইঁদুর বিড়াল খেলা খেলছে।একদিকে যেমন উপগ্রহ থেকে তোলা ছবি থেকে তারা নিজেদের লুকিয়ে রাখতে পারছে না। তখন নিজেদের অপরাধগুলোকেও তারা লুকিয়েং রাখতে পারছনা। তখন তারা মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে বাংলাদেশসহ বহির্বিশ্বকে শান্ত করে। একসময়ের সমৃদ্ধ অঞ্চল আরাকান এখন ধ্বংস হয়ে গেছে।এখানে কোন ঘর বাড়ী আর নেই। অনেক ...

বিস্তারিত »

মন দিয়ে তো বসে আছি, অাংটি দিয়ে লাভটা কি!

এম.আর মাহমুদ : মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গারা কি পুণরায় নিজ দেশে ফিরতে পারবে। প্রশ্নটি জটিল। তবে কদিন আগে মিয়ানমারের একজন মন্ত্রী ঢাকায় এসে পররাষ্ট্র মন্ত্রী এ.এইচ মোহাম্মদ আলীর সাথে বৈঠক করে আশ্বাস দিয়েছেন- আরকান থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের যাচাই-বাছাই করে ফিরিয়ে নেবে। তবে কবে ফিরিয়ে নেবে দিনক্ষণ ঠিক করা হয়নি। মিয়ানমারের মন্ত্রী বাংলাদেশে এসে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার ঘোষনায় কুটনৈতিক বিজয় ...

বিস্তারিত »

রোহিঙ্গায় সাবধান আওয়ামী লীগ

রিপোর্টারের ডায়েরি তোফায়েল আহমদ রোহিঙ্গাদের উপর মিয়ানমার বাহিনীর নির্যাতন-নিপীড়ন, হত্যা, নারী ধর্ষণ ও ঘর-দুয়ার জ্বালিয়ে দেয়া সহ হরেক রকমের জঘন্য ঘটনা যতই না ঘটুক-একাত্তরের পাকি বর্বরতার সাথে তুলনীয় কিছুতেই নয়। মিয়ানমার সেনারা রোহিঙ্গাদের উপর ক্ষীপ্ত। রোহিঙ্গাদের দাবি তারা মুসলমান হবার কারনেই নিপীড়নের টার্গেট হয়েছেন। তাই বিশ্বব্যাপি মুসলমানদের উপর যে নিপীড়ন চলছে হয়তোবা তারই ধারাবাহিকতা। কিন্তু পাকিরা মুসলমান হয়েও একাত্তরে বাঙ্গালী ...

বিস্তারিত »

কুকুরেরও ভাদ্র মাস ফুরোয়, ফুরোয় না পুরুষের

শাশ্বতী বিপ্লব: কয়েকদিন ধরেই সন্তর্পণে এড়িয়ে যাচ্ছিলাম ধর্ষকাম সমাজের নানা বিকৃতি আর বিকারগ্রস্ত উল্লাস। সাহিত্য জগতের নববিস্ময় থেকে শুরু করে প্রধানমন্ত্রীর ছবি নিয়ে মুখোশ পড়া মুক্তমনাদের উচ্ছসিত তামাশা পর্যন্ত – দাঁতে দাঁত চেপে নিজেকে বিরত রেখেছি প্রতিক্রিয়া জানানো থেকে। কী হবে লিখে? গত বছর তনু হত্যার পর তাৎক্ষণিক ক্ষোভ থেকে লিখেছিলাম – “যতই সাত পরত কাপড় জড়িয়ে বাহারী পিনের সমাহারে ...

বিস্তারিত »

কেনে চলের?

কক্সবাজারের ৮ উপজেলায় ২ জন সাব-রেজিষ্ট্রার! এম.আর মাহমুদ সর্বোচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত অসংখ্য যুবক বেকারত্বের অভিশাপ নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করলেও সরকারি চাকুরি নামক সোনার হরিণটি ধরতে আপ্রাণ চেষ্টা করেও বেশির ভাগ ক্ষেত্রে বার বার ব্যর্থ হচ্ছে । সমস্ত যোগ্যতা থাকার পরও অনেকে মামা ও কোটার অভাবে চাকুরি পাচ্ছে না। আবার অনেকে বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও স্বপদে চাকুরি পাচ্ছে না। পিএসসি ...

বিস্তারিত »

মায়ের কাছে চিঠি

-তসলিমা নাসরিন তোমাকে ভালোবাসার কোনও চল আমাদের বাড়িতে কখনও ছিল না। বাবাকে যমের মতো ভয় পেতাম। বাবা ছিল আমাদের শিক্ষক। আমাদের নীতি আদর্শ বোঝাতো। সকাল সন্ধ্যে কেবল জ্ঞান দিত। বড় হওয়ার, ভালো হওয়ার, সৎ হওয়ার, মানুষের মতো মানুষ হওয়ার। বাবার টাকায় আমাদের খাওয়া হত। বাবা কিনে দিলে কাপড় জামা পেতাম। বাবা ইস্কুলে ভর্তি করাতো, বই খাতা কিনে দিত, মাস্টার রেখে ...

বিস্তারিত »